বাংলাদেশ মঙ্গলবার 21, May 2019 - ৭, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বাংলা


শিক্ষকের হাতে হাবিপ্রবি রেজিস্ট্রার লাঞ্চিত

২৯ নভেম্বর, ২০১৮ ২১:২৫:১০

হাবিপ্রবি  প্রতিনিধি:

ইনক্রিমেন্টের দাবীতে আন্দোলনকারী শিক্ষকদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শফিউল আলম। বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে দুইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের তৃতীয় তলায় রেস্ট্রিারের কক্ষের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, গত ১৪ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬ টার দিকে পদোন্নতি প্রাপ্ত ৫৭ জন শিক্ষক কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদারের কক্ষে গেলে ইনক্রিমেন্ট পাওয়া নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় প্রক্টর অধ্যাপক ডা.মো. খালেদ হোসেন, ছাত্র পরামর্শ বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. তারিকুল ইসলাম এবং ৪ জন ছাত্রসহ মোট ৬০ জনের বিরুদ্ধে মহিলা শিক্ষককে লাঞ্চিত করার অভিযোগে গত ২১ নভেম্বর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হাসান জামিল।
ওই ঘটনায় প্রশাসনের পক্ষে রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শফিউল আলম কোতয়ালী থানায় একটি পাল্টা এজাহার জমা দিয়েছেন। যা গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রেকর্ড হয়নি। যাতে আন্দোলনকারী কয়েকজন শিক্ষকের নাম রয়েছে। এ নিয়ে পদোন্নতি প্রাপ্ত আন্দোলনকারী শিক্ষকরা বৃহস্পতিবার কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদারের কক্ষে যান। এ সময় ট্রেজারার শিক্ষকদেরকে রেজিস্ট্রারের সঙ্গে কথা বলতে বলেন। পরে শিক্ষকরা রেজিস্ট্রারের কক্ষে যান। এসময় দুপুরের খাবার গ্রহণের কথা বলে নিজ কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে কয়েকজন শিক্ষক পিছন দিক থেকে রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শফিউল আলমকে কিল-ঘুষি মারেন এবং হাত ধরে টেনে নিচে নিয়ে আসেন। পরে অন্য শিক্ষকরা রেজিস্ট্রারকে উদ্ধার করেন।
এ ব্যাপরে পদোন্নতি প্রাপ্ত রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মহসীন আলী বলেন, আমরা মামলার বিষয়ে প্রথমে কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদারের কক্ষে যাই। তিনি বিষয়টি নিয়ে রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শফিউল আলমের সঙ্গে কথা বলতে বলেন। সেকারণে আমরা রেজিস্ট্রারে সঙ্গে তার কক্ষে কথা বলতে যাই। তিনি আমাদের সঙ্গে কথা বলে লাঞ্চে চলে যান। মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি।
এ ব্যাপরে জানতে কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদারকে ফোন করা হলে মিটিং এ আছি বলে লাইন কেটে দেন তিনি। রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শফিউল আলম বলেন, এ বিষয়ে আমার কোন বক্তব্য নেই। আপনারা ঘটনা সংগ্রহ করে নিউজ করেন। কোন অভিযোগ করেছেন কিনা তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, উপাচার্য ক্যাম্পাসে নেই। তিনি এলে তাঁর সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। হাবিপ্রবির ছাত্র পরামর্শক ও পরিচালক অধ্যাপক তারিকুল ইসলাম বলেন, আমি ঘটনা শুনেছি।

 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান কিনতে বলেছে সংসদীয় কমিটি

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান কিনতে বলেছে সংসদীয় কমিটি

সরকারের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা দেড় লাখ টন ধানের চেয়ে আরও বেশি ধান কেনার সুপারিশ করেছে সংসদীয়

সাময়িক বহিষ্কৃত জয় দেবের অভিযোগ যাচাইয়ে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

সাময়িক বহিষ্কৃত জয় দেবের অভিযোগ যাচাইয়ে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুসলিম ধর্মকে সন্ত্রাসবাদ আখ্যা এবং মহানবী( সা:) কে নিয়ে কুটূক্তি করা কুমিল্লা

কুড়িগ্রামে ইউএনও কার্যালয়ে অবস্থান নিয়ে টাকা ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ   

কুড়িগ্রামে ইউএনও কার্যালয়ে অবস্থান নিয়ে টাকা ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ   

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার ছয় মাস পার হলেও মাসে মাসে জমা করা


মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা উধাও

ফুলবাড়ীতে ভিজিডি’র সঞ্চয়ের দেড় কোটি টাকা গায়েব

ফুলবাড়ীতে ভিজিডি’র সঞ্চয়ের দেড় কোটি টাকা গায়েব

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা.মাছুমা আরেফিন টাকা উত্তোলনে জন্য স্বাক্ষর করেছেন মনে নেই, দেখতে

বেরোবিতে ভর্তি পরীক্ষার সোয়া কোটি টাকা বন্ঠন শিক্ষক-কর্মকর্তাদের অসন্তোষ

বেরোবিতে ভর্তি পরীক্ষার সোয়া কোটি টাকা বন্ঠন শিক্ষক-কর্মকর্তাদের অসন্তোষ

চলতি শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা থেকে মোট আয়ের উদ্বৃত্ত সোয়া কোটি টাকা শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের মাঝে

হাবিপ্রবিতে ছাত্রলীগের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

হাবিপ্রবিতে ছাত্রলীগের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

  দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের আয়োজনে ইফতার ও


সৌম্য-মোসাদ্দেকে ভর করে ইতিহাসের প্রথম ফাইনাল জিতল বাংলাদেশ

সৌম্য-মোসাদ্দেকে ভর করে ইতিহাসের প্রথম ফাইনাল জিতল বাংলাদেশ

মাশরাফি বিন মুর্তজা ‘মানসিক বাধা’র কথা বলেছিলেন। বাংলাদেশ যে বাধাটা কেন যেন উতরে যেতে পারছিল

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা কেন পড়ানো হয় না?

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা কেন পড়ানো হয় না?

 বাংলাদেশের মানুষের মাতৃভাষা বাংলা হলেও, দেশটির বেশিরভাগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েই উচ্চ শিক্ষা হিসাবে বাংলা পড়ার কোন

হ্যাকিংয়ের শিকার হোয়াটসঅ্যাপ: কি করবেন?

হ্যাকিংয়ের শিকার হোয়াটসঅ্যাপ: কি করবেন?

 জনপ্রিয় মেসেজিং আ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ ইসরাইলের মাধ্যমে হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে বলে  খবর প্রকাশ করেছে বিভিন্ন গনমাধ্যম।



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ